বেষ্ট অ্যাডভেঞ্চার ইংলিশ মুভি: পাইরেটস অফ দ্যা ক্যারিবিয়ান


পাইরেটস অফ দ্যা ক্যারিবিয়ান মুভি রিভিউ
★ Spoiler Alert ★
আমার জানা মতে ফ্যান্টাসি / অ্যাডভেঞ্চার জনরার এই মুভি সিরিজটা সবারই ভালো লাগছে । আমি ছোট থেকেই মুভি লাভার প্রচুর মুভির ক্যাসেট কিনতাম , তখন সেই ক্যাসেটে এই মুভির প্রথম পার্ট ছিলো যা দেখে আমার অনেক অনেক ভালো লাগছিলো। যার ফলে আরো এই মুভির পার্ট আছে কিনা খুজতেছিলাম, তখন আমি ক্লাস সিক্সে পড়ি আর তখন এত ইন্টারনেট ও ছিলো না হাতের কাছে ফোনও ছিলো ২০১১ সালের দিগে। অনেক খুজার পর নবীনগর ক্যাসেটের দোকানে পরে আরো দুই পার্ট পাইছিলাম।

1. Pirates of the Caribbean: The Curse of the Black Pearl (2003)
IMDb - 8 / 10
সাগরের বুকে উন্মত্ত এক জলদস্যুর জাহাজ ভেসে বেড়ায় বলে গুজব আছে। ব্ল্যাক পার্ল; নামের মত কালো পতাকা উড়িয়ে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির জাহাজ লুট করে বলে শোনা যায়। চোখে সেই জাহাজ দেখেছে, এমন দাবি করা মানুষের সংখ্যা খুবই কম। পোর্ট রয়্যালের গভর্নর ওয়েদার্বি সোয়ানের মেয়ে এলিজাবেথ সোয়ান, ক্যাপ্টেন হেক্টর বারবোসার নেতৃত্বাধীন ব্ল্যাক পার্ল-এর নাবিকদের দ্বারা অপহৃত হয়। কারণ অ্যাজটেক স্বর্ণ এবং এলিজাবেথের রক্তের মাধ্যমে তারা তাদের ওপর আরোপিত অভিশাপ থেকে মুক্ত হবে। এদিকে এলিজাবেথে ছোটবেলার বন্ধু ও গোপন প্রেমিক উইল টার্নার, ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারোকে সঙ্গে নিয়ে এলিজাবেথকে উদ্ধারের জন্য রওনা হয়।

2 . Pirates of the Caribbean: Dead Man's Chest (2006)
IMDb - 7.3 / 10
এটির কাহিনী শুরু হয় এর আগের পর্বে যেখানে শেষ হয়েছিলো তার পর থেকে। ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারো দেখতে পায় যে, খলনায়ক ডেভি জোন্সের ঋণ এখনো পরিশোধ করা বাকি আছে। আর এদিকে লর্ড কাটলার বেকেট জ্যাক স্প্যারোর ফাঁসির মঞ্চ থেকে পালিয়ে যাওয়ার সুযোগ করে দেওয়ার অপরাধে উইল টার্নার ও এলিজাবেথ সোয়ানকে গ্রেফতার করে।

3 . Pirates of the Caribbean: At World's End (2007)
IMDb - 7. 1 / 10
মহাসাগর নিয়ন্ত্রণ করতে লর্ড কাটলার বেকেট নতুন নিয়ম করেন, যাতে দস্যুতার সাথে যুক্ত যে কাউকে মৃত্যুদণ্ড দেবার ক্ষমতা তিনি রাখেন। ডেভি জোন্সের হৃদপিণ্ড নিজের দখলে আনার মাধ্যমে বেকেট জোন্সকে নিজের হুকুম পালন করতে বাধ্য করে ও তাকে সকল জলদস্যু জাহাজ ধ্বংস করার নির্দেশ দেয়। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বন্দীরা হোয়েস্ট দ্য কালারস গান গাবার মাধ্যমে শিপরেক কোভের ব্রেদার্ন কোর্টের নয় জলদস্যু নেতাকে একত্রে মিলিত হওয়ার নিশানা দেয়। যদিও ক্যারিবীয় অঞ্চলের জলদস্যু নেতা ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারোর কখনোই কোনো উত্তরসূরী ছিলো না। তাই হেক্টর বারবোসার নেতৃত্বে উইল টার্নার , এলিজাবেথ সোয়ান , টিয়া ডালমা ব্ল্যাক পার্ল-এ করে জ্যাককে উদ্ধারে রওনা হয়। এ উদ্দেশ্যে তারা প্রথমে সিঙ্গাপুরে যাত্রা করে। কারণ দক্ষিণ চীন সাগরের জলদস্যু নেতা সাও ফ্যাংয়ের কাছে ডেভি জোন্স লকারের একটি মানচিত্র আছে, এবং সেখানেই জ্যাক স্প্যারো বন্দী। এছাড়া উইল ফ্যাংয়ের সাথে এও চুক্তি করে যে, ফ্যাং জ্যাক স্প্যারোর বিনিময়ে উইলকে ব্ল্যাক পার্ল দিয়ে দেবে, এবং এর ফলে সে দ্য ফ্লাইং ডাচম্যান থেকে তার বাবা বুটস্ট্র্যাপ বিল টার্নারকে মুক্ত করতে পারবে।

4 . Pirates of the Caribbean: On Stranger Tides (2011)
IMDb - 6.6 / 10
এই পর্বে ফাউন্টেইন অব ইয়ুথের সন্ধানে ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারো অ্যাঞ্জেলিকা’র সাথে যোগ দেন। তাদের সাথে ফাউন্টেইন অব ইয়ুথের সন্ধানের আরও যোগ দেয় জলদস্যু ব্ল্যাকবিয়ার্ড এবং তাদের পিছু নেয় ক্যাপ্টেন বারবোসা ।

5 . Pirates of the Caribbean: Dead Men Tell No Tales (2017)
IMDb - 6.6 / 10
সালাজার নামে এক জীবন্মৃত ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারোকে খুঁজছিলো হন্যে হয়ে। জ্যাকের উপর প্রতিশোধ নিতে চায় সে। কিন্তু বন্দী থাকায় সেটা হচ্ছিলো না। জ্যাকের বেখেয়ালে সে বন্দীদশা থেকে মুক্তি পায়,পেয়েই সাগরে সে শুরু করে তান্ডব। জ্যাকের কানে খবর পৌঁছাতে সময় লাগে না। জ্যাক স্প্যারো, উইল টার্নারের ছেলে হেনরি এবং কারিনা নামে একজন এস্ট্রোনমার, তাদের উদ্দেশ্যের কারণে একসাথ হয়। সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে তারা ছুটে চলে সাগরে, পিছনে তাদের ধাওয়া করে সালাজারের আনডেড জাহাজ

~ এই মুভি সিরিজে VFX এর কোন কমতি ছিলো না,ফ্যান্টাসি / অ্যাডভেঞ্চার জনরার এই মুভি দেখতে বসলে সব গুলো পার্ট দেখতে মন চাবেই।

🌹🌹🌹🌹🌹🌹শুভ জন্মদিন জনি ডিপ 🌹🌹🌹🌹🌹
তথ্য সংরক্ষণ - Google √


Post Author: Prasanta Mondel

Post a Comment

0 Comments